শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
সময়ের চোখ ডট নেট ওয়েবসাইটে আপনাদের স্বাগতম। আমাদের পাশে থাকার জন্য কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। সময়ের চোখ ডট নেট অনলাইন নিউজ পোর্টালের কর্মরত সকল সাংবাদিকদের ই-মেইলে নিউজ পাঠাতে অনুরোধ করা হলো।
সংবাদ শিরোনাম ::
সালথায় নির্বাচনী আচরণ বি‌ধি লংঘন করায় দুই প্রার্থী‌কে শোকজ নিরোপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে কারো কোন হুমকি ধামকি চলবে না-পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান নগরকান্দায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থী যাচাই বাছাই সম্পন্ন ফরিদপুর হিন্দু পরিষদ ও জাতীয় হিন্দু মহাজোট উদ্যোগে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত । সাপাহারে ফাইনাল ফুটবল খেলা অনুষ্ঠিত সালথায় মেজর (অবঃ) আতমা হালিমের উদ্যোগে শেখ রাসেলের জন্মদিন পালিত কোটালীপাড়ায় চেয়ারম্যানের কক্ষে ডেকে নিয়ে ২ সাংবাদিককে হুমকি নগরকান্দায় সাংবাদিকের উপর হামলার চেষ্টা, গণধোলাই খেয়ে পালালো দূর্বৃত্তরা মুকসুদপুরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি মুকসুদপু‌রে চোলাই মদসহ যুবক আটক

প্রচারনা জোরদার করছেন গোপালগঞ্জের বিভিন্ন ইউনিয়নে সাম্ভাব্য প্রার্থীরা

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ১১.০১ এএম
  • ১০৮ বার পঠিত

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : শীঘ্রই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে তফশিল ঘোষনা করা হতে পারে বলে ধারনা সবার। আর সে ধারনা থেকেই সাম্ভাব্য প্রার্থীরা আদাজল খেয়ে মাঠে নেমে পড়েছেন জেলার বিভিন্ন ইউনিয়নগুলিতে ।

সরেজমিন চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশিরাই পোষ্টার বা ব্যানার রাস্তার মোড়ে মোড়ে টানিয়ে নিজেদের পরিচিতি ও আগ্রহের কথা তুলে ধরছেন। সেই সাথে তারা যে গরীব,দু:খী ও মেহনতী মানুষের বন্ধু সে বিষয়টিও উল্লেখ করছেন। সাম্ভাব্য প্রার্থীদের পোষ্টার বা ব্যানারে দেখা যায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান,প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা,আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও গোপালগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করীম সেলিম, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও গোপালগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য লে.কর্ণেল (অব:) ফারুক খানের ছবি। কেন্দ্রিয় নেতাদের ছবির পাশাপাশি তাদের সন্তানদের এবং অন্যান্য কেন্দ্রিয় ও স্থানীয় নেতাদের ছবি সাম্ভাব্য প্রার্থীরা পোষ্টার বা ব্যানারে ব্যবহার করছেন। দলীয় মনোনয়ন পেলে আওয়ামী লীগের দূর্গ বলে পরিচিত গোপালগঞ্জ জেলার যে কোন ইউনিয়ন থেকে জয়লাভ সহজ তাই সাম্ভাব্য প্রার্থীরা মাঠের পাশাপাশি দলীয় নেতাদের খুশি করতেও তৎপর।

জেলার বেশ কয়েকটি ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশিরা তাদের সকল প্রকার কলাকৌশল ব্যাবহার করে জনসম্মুখে নিজের অবস্থান তুলে ধরতে চাইছেন। সদর উপজেলার সাতপাড় ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান সুজিত মন্ডল বলেন,‘আমি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে চাই। আর একবার দলীয় মনোনয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে অসমাপ্ত সমাপ্ত করতে পারবো বলে আশা রাখি’।

একই কথা বলেছেন চন্দ্রদিঘলিয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান বিএম ওবায়দুর রহমান। তিনি বলেন,‘আমি ইউনিয়নবাসীর জন্য যা করেছি তা বর্ননা করতে চাইনা। তবে আমাদের ইউনিয়নের মানুষের সেবা করার জন্য আর একবার সুযোগ চাই। আমি নির্বাচিত হলে ইউনিয়নের জন্য কল্যানমুলক কার্যক্রম করবো’।

পাইককান্দি ইউনিয়নের সাম্ভাব্য প্রার্থী সোহেল রানা বলেন,‘আমি নির্বাচিত হলে ইউনিয়নবাসীর সেবায় নিয়োজিত থাকবো। আমি দু:খী মানুষের মুখে হাসি ফুটিয়ে একটি আধুনিক ও ডিজিটাল ইউনিয়ন গড়ে তুলতে চাই’। বৌলতলী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান সুকান্ত বিশ^াস ও কাশিয়ানী সদর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো: মশিউর আসন্ন নির্বাচনের ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা কোন মন্তব্য করতে চায় নাই। তাদের ছবি চাইলে পরে যোগাযোগ করার কথা বলেন।

কাশিয়ানী সদর ইউনিয়নের মো: আবুল কালাম কালু মৃধা ও মোহাম্মদ আলী খোকন নামে দুই জন প্রার্থীর সাথে কথা বলে জানা গেছে তারা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী। আবুল কালাম (কালু মৃধা) বলেন,‘আমি কাশিয়ানী সদর ইউনিয়নকে আধুনিক ও মানসম্মত করে গড়ে তুলতে চাই। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে হলে নগরায়নের কোন বিকল্প নাই। কাশিয়ানী একটি সমৃদ্ধ জনপদ। সে কারনে কাশিয়ানী ইউনিয়নবাসী এখন নাগরিক সুবিধা শতভাগ দাবী করে। আমি উপজেলা আওয়ামী লীগের একজন সদস্য’। কাশিয়ানী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী খোকন বলেন,‘আমি দুই বার চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হয়েছি। বিভিন্ন সময়ে দলের উপজেলা পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছি। আসন্ন নির্বাচনে দলের মনোনয়ন চাই। দলের সিদ্ধান্ত মেনে আগেও চলেছি এবারও চলবো। আমি নির্বাচিত হলে কাশিয়ানীবাসীর পৌর নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধির পাশাপাশি একটি আদর্শ ডিজিটাল ইউনিয়ন হিসাবে গড়ে তোলার চেষ্টা করবো’। চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের পাশাপাশি মহিলা সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীরাও বসে নেই। গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার সাতপাড় ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে (১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ড) বিথী কির্ত্তনীয়া ও সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে (৪,৫ ও ৬ নং ওয়ার্ড) উন্নতি মন্ডল সাম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে প্রচারনা চালাচ্ছেন। তারা উভয়ে মানুষের সেবা করতে চান এবং বঞ্চিত এলাকাবাসীর ভাগ্য উন্নয়নে সকল প্রচেষ্টা চালাবেন বলে জানিয়েছেন। জেলার কাশিয়ানী সদর ইউনিয়নের রচনা বেগম বলেন, আমি সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে (১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ড) সাম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে প্রচারনা চালাচ্ছি। মানুষের কাছে দোয়া ও আশির্বাদ চাচ্ছি। আমি নির্বাচিত হলে এলাকাবাসীর সুখেদু:খে পাশে থাকবো। আমি অসহায় ও বঞ্চিতদের জন্য কাজ করতে চাই।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

131d5763789044479a781faf3fa13867
© All rights reserved  2021 ‍SomoyerChokh
Theme Download From ThemesBazar.Com